হবু মায়ের হসপিটাল ব্যাগ চেকলিস্ট

প্রেগন্যান্সির ৩৫-৪০ সপ্তাহ খুবই অনিশ্চয়তায় ভরা একটা সময়। কারো ক্ষেত্রে দেখা যায় এক্সপেক্টিং ডিউ ডেট পার হয়ে যাবার পর বাবুর ডেলিভারি হয়েছে (আমার যেমন ৪১ সপ্তাহ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছিল), কারো ক্ষেত্রে ৩৬/৩৭ সপ্তাহেই বেবিকে পেয়ে গেছেন। আমি বলব ৩৫ সপ্তাহ থেকেই ডেলিভারির জন্য মানসিক এবং শারীরিক প্রস্তুতি নেয়া শুরু করা দরকার, কারণ বাবু যেকোন সময় পৃথিবীতে চলে আসতে পারে।
বাবুর জন্য কাপড়চোপড় ও জরুরি জিনিস কেনা, ব্লাড ডোনার খুঁজে রাখা,হাসপাতাল ঠিক করে নেয়া এসব কিছুর সাথে হাসপাতালের ব্যাগ টা গোছাতে ভুলবেন না। মনে হতে পারে যাওয়ার আগে ব্যাগ গুছিয়ে নিলেই চলবে, তবে হুট করে ব্যাথা উঠলে তাড়াহুড়ো করে আসলে জরুরি অনেক জিনিস বাদ পড়ে যেতে পারে।আর একবার হসপিটালে গেলে কমপক্ষে ২৪ ঘন্টা বাবু এবং মা দুজনের ই থাকতে হতে পারে, সি-সেকশন হলে ২-৪ দিন (অনেক ক্ষেত্রে আরো বেশি)।
তো আজকের পোস্ট এ চেষ্টা করেছি হাসপাতালের ব্যাগে যা যা লাগতে পারে সব একটি চেকলিস্ট আকারে লিখতে। যাতে ব্যাগ গোছানোর সময় দরকারি জিনিস লিস্ট দেখে নিতে পারেন, আর জরুরি কিছু বাদ না পড়ে।
মায়ের জন্য
  • সব রিপোর্ট একটা ফাইলে নিয়ে নিবেন।
  • স্যানিটারি ন্যাপকিন/ এডাল্ট ডায়াপার। 
  • নার্সিং ব্রা যদি সার্বক্ষনিক ব্রা পরার অভ্যাস থাকে।
  • ম্যাক্সি সামনে খোলা ৪-৫টা।
  • পেটিকোট।
  • চাদর/শাল/বড় নরম ওড়না।
  • স্যান্ডেল।
  • নিপল ক্রিম ( ঘন ঘন ব্রেস্টফিড করালে নিপল ক্র্যাক হবেই, এটা অবশ্যই সাথে রাখবেন) 
  • স্কিন কেয়ার প্রোডাক্টস (টুথব্রাশ, পেস্ট, ফেসওয়াশ , ময়শ্চারাইজার, টামি বাটার, ভ্যাসলিন) 
  • টাওয়াল।
  • ইলেকট্রিক কেটলি ।
  • চিরুনি, হেয়ার ব্যান্ড।
  • মোবাইল চার্জার।
  • মগ , প্লেট, ছোট ছুরি (ফল যদি খান), পাঁচ লিটার পানির গ্যালন।
  • এবডোমিনাল পোস্ট প্রেগন্যান্সি বেল্ট (এটা অনেক হাসপাতাল থেকেই দেয় আর কিনে হাসপাতালে নেয়ার দরকার নেই। বাসায় ফেরার পর কিনলেও হয়। অনেকে মনে করেন এই বেল্ট ব্যবহারে পেট কমে। এটা সম্পুর্ন ভুল ধারনা। সিজার হলে আমাদের পেটের মাসল তখন লুজ থাকে (মাসল এ কোন সেলাই দেয়া হয়না) তাই হার্নিয়া হবার সম্ভাবনা কমাতে এই বেল্ট পরতে বলা হয়)
বাবুর জন্য
  • বাবুকে জড়ানোর জন্য নরম কাথা
  • ইউরিন ম্যাট
  • বাবুর জন্য কয়েক সেট নরম সুতির জামা, ফুল লেংথ রম্পার বা ওয়ানজি,মোজা, কান টুপি যদি শীতকাল হয়।
  • বেবি ওয়াইপস ( ওয়াটার বেইজড টা প্রেফার করি আমি। স্যাভলনের টা ভাল। অনেক বেশি লাগবে এটা)
  • গিলবার্ট লিনিডার্ম ( ন্যাপি র্যাশ, বা বেবিকে পরিষ্কার করার সময় খুব কাজে দিবে) 
  • ডায়াপার অথবা ন্যাপী ( দুইটাই কাজে লাগে)
  • ফিডার (যদি ফর্মুলা আর ব্রেস্ট মিল্ক দুটোই দিতে চান)
  • ফর্মুলা মিল্ক ( যদি মিক্স ফিড করান)
বাবুর জন্য, মায়ের জন্য যে কাপড় ই নিবেন সাবান দিয়ে ধুয়ে ভালোভাবে শুকিয়ে ব্যাগে নিবেন, অনেকে স্যাভলন-ডেটল দিয়ে ধুয়ে নিতে চান, এতে বাচ্চার গায়ে র্যাশ হবার সম্ভাবনা থাকে। বিশেষ করে, বাবুকে কোনোভাবেই নতুন কেনা কাপড় পরানো বা গায়ে জড়ানো যাবেনা। ডেলিভারির জন্য যে হাসপাতাল বেছে নিবেন, সেখানে কি কি সুবিধা পাওয়া যায় জেনে নিবেন। কিছু হাসপাতালে বলতে গেলে তেমন কিছুই নেয়া লাগেনা। আর আমার দেয়া লিস্ট থেকে কিছু বাদ পড়লো কিনা কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না ❤

লিখেছেন-

Miti-apron
MBBS, MSc, PGT (Dermatology)

Dr Ishrat Nazneen Metee